আজ আবার পাকিস্তান বাংলাদেশ লড়াই

    1
    7

    আমারসিলেট24ডটকম,৩০মার্চঃ কোয়ালিফাইং রাউন্ডে আফগানিস্তান ও নেপালের সঙ্গে জয়। আবার নবাগত হংকংয়ের সঙ্গে হার। এর পরও সুপার ১০-এ খেলার যোগ্যতা অর্জন করে স্বাগতিক বাংলাদেশ। অপরদিকে সরাসরি সুপার দশে খেলার যোগ্যতা নিয়ে টি-টোয়েন্টির এবারের আসর শুরু করে পাকিস্তান। টি-টোয়েন্টির এবারের আসরে সুপার দশে নিজেদের দুইটি খেলার একটিতেও জয় পায়নি বাংলাদেশ। সে হিসেবে সেমিফাইনালে ওঠার আশা নেই বললেই চলে। প্রতিপক্ষ ভারতের সঙ্গে হারলেও অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে জয় এখনও সেমিফাইনালে খেলার আশা জিইয়ে রেখেছে পাকিস্তান। খেলা বাকি দুইটি।

    এমন অবস্থায় আজ রবিবার বিকেল সাড়ে ৩টায় মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও পাকিস্তান। টি-টোয়েন্টিতে পাকিস্তানের সঙ্গে এর আগে ছয় বারের দেখায় বাংলাদেশের কোনো জয় নেই। গত বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে আজমল-হাফিজ-গুলদের বোলিংয়ের সামনে সাকিবের দুর্দান্ত ইনিংস কিছুটা আশা জাগানো এবং অনুপ্রেরণা হতে পারে।
    ম্যাচের আগে  গতকাল শনিবার সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক মুশফিক নিজে না এসে পাঠালেন দলের সেরা খেলোয়াড় সাকিব আল হাসানকে। সংবাদ সম্মেলনে প্রথমেই সাকিব জানালেন, হয়তো এখন আর আমাদের বাড়তি চাপ নেই। বাস্তবতা আমরা সেমিফাইনাল থেকে বেশ খানিকটা দূরে সরে গেছি। তবে খেয়াল করলে দেখবেন আমাদের মূল লক্ষ্য ছিল চূড়ান্তপর্বে কোয়ালিফাই করা। সেটা আমরা করেছি। এখন আমাদের লক্ষ্য একটা বড় দলকে হারানো, তবে দুইটা হলেও খারাপ হবে না।
    এখন প্রেসার নেই, সুযোগ এসেছে প্রেসার মুক্ত থেকে মাঠে নিজেদের সেরাটা দেওয়া, বলেন সাকিব। তবে বাংলাদেশের সঙ্গে রবিবারের ম্যাচকে গুরুত্ব দিচ্ছে পাকিস্তান। স্বাগতিকদের বিপক্ষে মাঠে নামার আগের শনিবার পাকিস্তান অধিনায়ক সংবাদ সম্মেলনে টুর্নামেন্টের সব ম্যাচকেই সমান গুরুত্ব দিতে চাইলেন।
    হাফিজ বলেন, প্রথম ম্যাচ ভারতের সঙ্গে হেরে কিছুটা চাপে পড়েছিল তার দল। তবে গত ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে দারুণ কামব্যাক ভালো কিছুরই ইঙ্গিত। হাফিজ আরও বলেন, পাকিস্তানের জয়ের কোনো বিকল্প নেই। নেট রানরেট বিষয়ে তাদের কোনো মাথাব্যাথা নেই। ম্যাচ বাই ম্যাচ জিততে হবে। জয় ছাড়া ভাববার সুযোগও নেই। পয়েন্টে সবারই সুযোগ আছে। তা ছাড়া বাংলাদেশের দিন যেকোনো দলই হারতে পারে। কঠিন সমীকরণে না গিয়ে জয়ের ওপরই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন হাফিজ।
    দিনের অপর খেলায় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় একই মাঠে সেমিফাইনালের টিকিট পাওয়া ভারত খেলবে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। গ্রুপ-২ থেকে ইতিমধ্যে ভারত সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে। আর তিন খেলায় দুইটিতে জয় নিয়ে এই গ্রুপের দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। রবিবারের খেলায় বাংলাদেশের বিপক্ষে পাকিস্তান জয়লাভ করলে পাকিস্তানের ঝুলিতেও জমা হবে চার পয়েন্ট।
    এ ক্ষেত্রে সেমিফাইনালে যাবে কোন দল তা দেখার জন্য বিশ্ববাসীর চোখ থাকবে ১ এপ্রিল পাকিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচের ওপর। একই অবস্থা গ্রুপ-১ এর। এখন পর্যন্ত গ্রুপ পর্বের সবগুলো ম্যাচ খেলেছে শুধুমাত্র দক্ষিণ আফ্রিকা। শনিবার নিজেদের সর্বশেষ চতুর্থ খেলায় ইংল্যান্ডকে ৩ রানে হারিয়ে সেমিফাইল নিশ্চিত করেছে প্রোটিয়ারা।
    সেমিফাইনালের দৌড়ে এই গ্রুপ থেকে তিন খেলায় সমান সংখ্যক পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে শ্রীলঙ্কা ও নিউজিল্যান্ড। যদিও নেট রান রেটে এগিয়ে শ্রীলঙ্কা। তাই এই গ্রুপ থেকে দ্বিতীয় দল হিসেবে কে সেমিফাইনালে উঠবে তা নির্ধারণ হবে ৩১ মার্চ সোমবার চট্টগ্রামে শ্রীলঙ্কা ও নিউজিল্যান্ডের ম্যাচের মধ্য দিয়ে। টি-টোয়েন্টির এবারের আসরে সেমিফাইনালের আগে রবিবারের দুইটি ম্যাচসহ মোট ছয়টি খেলা বাকি। সুত্রঃকালের কণ্ঠ

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here